বিচারপতি সুলতান হোসেন খান এবং বিচারপতি এ.এম মাহমুদুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের পূর্নাঙ্গ বেঞ্চ ১৯৮৫ সালের ৮ই আগস্ট সর্বসম্মত রায়ে কাদিয়ানীদের প্রকাশিত ‘ইসলামে নবুয়ত‘ নামক বইটি বাজেয়াপ্ত করে। (৪৫ ডিএলআর, ১৯৯৩)। সংবিধানের ১৯৭২ আর্টিকেলের ১০২ অনুচ্ছেদের অধীনে ও ফৌজদারি কার্যবিধির ধারা ৯৯(ক) অনুসারে ০৮ই-আগস্ট-১৯৮৫ সালে বাংলাদেশ হাইকোর্ট ডিভিশন থেকে উক্ত রায়ের মাধ্যমে যে বইটি বাজেয়াপ্ত করা হয় সেটি কাদিয়ানী মতাবলম্বী জনাব মুহম্মদ আমীর কর্তৃক বাংলাদেশ আনজুমান-ই-আহমদীয়া’র পক্ষে রচিত ছিল। উক্ত রায়ে বিজ্ঞ আদালত ৪১ নং আর্টিকেলে বলেন,

  • “আহমদীয়া সম্প্রদায়ের ধর্মীয় বিশ্বাস প্রচারের অধিকার দেশের আইন, জনশৃঙ্খলা এবং নীতি নৈতিকতার অধীন (অর্থাৎ এতে কোনো প্রকারের ধোকা, প্রতারণা ও মিথ্যার আশ্রয় নেয়া যাবেনা)। বইটিতে (ইসলামে নবুয়ত) এমন বিষয় রয়েছে যা ইচ্ছাকৃতভাবে এবং বিদ্বেষপূর্ণভাবে মুসলমানদের বেশিরভাগ ধর্মীয় বিশ্বাসকে ক্ষুব্ধ করার উদ্দেশ্যেই ছিল। তাই সরকারের জন্য বইটি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ ন্যায়সঙ্গত ছিল।” (অনলাইন থেকে হাইকোর্টের নিজেস্ব ওয়েবসাইট থেকে আর্টিকেল নং ৪১ দ্রষ্টব্য)।
হাইকোর্টের নিজেস্ব ওয়েবসাইট থেকে
  • উল্লেখ্য, সুলতান হোসেন খান ছিলেন একজন বাংলাদেশী বিচারক। তিনি ১৯৯০ সালে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন। দুর্নীতি দমন ব্যুরো ২০০৪ সালে দুর্নীতি দমন কমিশনে রূপান্তর হলে কমিশনের চেয়ারম্যান হন তিনি। বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানও ছিলেন তিনি। তিনি ৫ই জুলাই ২০১৫ সালে ঢাকায় স্কয়ার হসপিটালে ইন্তেকাল করেন।

Constitution of Bangladesh, 1972 Article 102

Forfeiture of book—Defect in the order is no ground for exercise of writ jurisdiction—For enforcers ment of fundamental right and for cancellation of order, the Court should look to the equity and good conscience in passing the impugned order (forfeiting the book in question). When the book contains materials justifying the government’s action, the impugned order cannot be struck down on the ground that it does not mention the facts in support of the action. ……. (5 & 7).

Code of Criminal procedure (V of 1898) Section 99A

Forfeiture of book—Government is not required to issue notice–The provision may be invoked when the writing and publishing of a book constituted a penal offence. The order of forfeiture is a preventive action requiring no notice to the author or the publisher to give them opportunity of being heard. ….. (8)

Constitution of Bangladesh, 1972 Article 102

The right to hear is a personal right–the writ petitioner being not the author or publisher of the forfeited book is not entitled to prior notice asking him to show cause against the impugned order…… (8)

Article 41

Right to profess religious–The right of the Ahmadiyya community to preach their religious beliefs is subject to law, public order and morality. The book having contained matters which are deliberately and maliciously intended to outrage the religious beliefs of the bulk of the Muslims, the Government was justified in forfeiting the book….. (11, 12, & 15)

ASM Wahidul Momin Chowdhury, Advocate —For the Petitioner.

MM Hoque, Deputy Attorney General—For the Respondent.

Judgment : Sultan Hossain khan J : This application under article 102 of the constitution as revived is directed an order dated 8.8.85 forfeiting the book in Bengali, styled “Islam-i-Nabuat” written by Moulvi Muhammed Ameer, Bangladesh Anjuman-e-Ahmadiyya, Dhaka, under section 99A of the Code of Criminal Procedure.The petitioner has alleged that the book was first written and published circulated in this country and that the forfeited book is its 10th edition. It have been stated that the views expressed in the book have not outraged the religious feeling of the Muslims of Bangladesh and has not created any ill-feeling or hatred between communities. In the petition it has been stated. “The book itself is a researchical one on religious thoughts and beliefs, i.e. a systematic investigation towards the development of Quaranic knowledge” It has been Stated that the petitioner has faith and belief in the spiritual writings as contained in the book and there is nothing in it which would create hatred or ill feeling between classes of citizens of Bangladesh and it has not outraged the religious faith or belief of any class of citizens by insulting their religious beliefs and faith. The petitioner has submitted that every citizen has a right to follow, practice and preach his own thoughts on religious beliefs and faith within the bounds of low, public order and morality and as such the order of forfeiture of the book must be held to have been made and passed illegally and without lawful authority, and should be set aside and cancelled. It has been stated, the theme in the book is purely a religious one and is based on the petitioner’s religious faiths and beliefs and that the writings in the book are expression of religious beliefs of Ahmadiyya sect of the Muslim Community ; the book cannot be said to have been written and published to promote a feeling of hatred and ill feeling between different classes of citizens of Bangladesh, or has not deliberately and maliciously intended to outrage the religious feelings of the Muslims of Bangladesh by insulting their religious beliefs. The petitioner has asserted that tolerance towards other religious faiths and belief is a fundamental basis of Islam and hence the writings and expression in the book in support of the religious beliefs of the Ahmadiyya sect of the Muslim cannot be said to be offensive as contemplated under section 99A CrPC and that the impugned order is illegal and was made and issued without any lawful authority and is of no legal effect. ((DLR [Dhaka law Reports], 45:185-86 by Justice Sultan Hossain khan and AM Mahmudur Rahman Vs Bangladesh Anjuman-e- Ahmadiyya, represented by its Secretary, Umoor-e Ama…..petitioner [Write Petition No. 407 of 1985)).

Screenshot, (Pdf)

Vol- 45, Page 185-86 Date 08-08-1985
Page No. 186

তথ্যসংগ্রহকারী ও লিখক, প্রিন্সিপাল নূরুন্নবী এম.এ

Previous articleমাহদী কাদ’আ গ্রাম থেকে বের হওয়া
Next articleবিনিময় নিয়ে ধর্মকর্ম
প্রিয় পাঠকবৃন্দ! এটি সম্পূর্ণ দ্বীনি ও অলাভজনক একটি ওয়েবসাইট। প্রতি বছর এটির ডোমেইন ও হোস্টিং ফি হিসেবে আমাকে এর ব্যয় বহন করতে হচ্ছে। যদি উক্ত ব্যয় বহন করতে অপারগ হই তাহলে এই সাইটটি নিশ্চিত বন্ধ হয়ে যাবে। সেহেতু আপনাদের সবার নিকট আবেদন থাকবে যে, আপনারা সাইটটির উক্ত ব্যয় বহনে এতে বিজ্ঞাপন দিতে বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহিত করবেন এবং নিজেরাও সহযোগিতায় এগিয়ে আসবেন। বিনীত এডমিন! বিকাশ : ০১৬২৯-৯৪১৭৭৩ (পার্সোনাল)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here