• মির্যা কাদিয়ানীর কথাবার্তায় জঘন্য স্ববিরোধীতা :

মির্যা কাদিয়ানীর বই থেকে :

১। সমস্ত হাদীস পড়ে দেখো কোনো সহীহ হাদীসে [ঈসা’র নাযিল সম্পর্কে] ‘আসমান’ শব্দ পাবেনা। (রূহানী খাযায়েন: ২৩/২২৯; রচনাকাল ১৯০৭ইং)। স্ববিরোধী কথা : ‘এই জন্যই তাঁর সম্পর্কে নিষ্পাপ নবীর ভবিষ্যৎবাণীতে এসেছে যে, তিনি [ঈসা] ‘আসমান’ থেকে নাযিল হবেন। (রূহানী খাযায়েন: ৫/২৬৮; রচনাকাল ১৮৯২ইং)।

রূহানী খাযায়েন: ২৩/২২৯ ও ৫/২৬৮

২। কেউ প্রমাণ করতে পারবেনা যে, আমি কোনো মানুষ থেকে কুরআন হাদীস অথবা তাফসীরের একটি পাঠও পড়েছি। (রূহানী খাযায়েন: ১৪/৩৯৪; রচনাকাল ১৮৯৭ইং)। স্ববিরোধী কথা : আমি যখন ছয় বছর বয়সী তখন একজন ফারসী ভাষী শিক্ষককে আমার জন্য চাকর নিযুক্ত করা হয়েছিল। তিনি কুরআন শরীফ এবং ফারসীর কিছু বই আমাকে পড়িয়েছেন। ঐ বুযূর্গ লোকটির নাম ছিল ফজলে ইলাহী। (রূহানী খাযায়েন: ১৩/১৮০)।

রূহানী খাযায়েন: ১৪/৩৯৪ ও ১৩/১৮০

৩। সুতরাং আমি ব্যতীত দ্বিতীয় আর কোনো মসীহ এর জন্য আমার যুগের পর [দুনিয়ায়] কদম রাখার [আগমন করার] জায়গা নেই। (রূহানী খাযায়েন: ১৬/২৪৩; রচনাকাল ১৯০০ইং)। স্ববিরোধী কথা : এই অধমের (মির্যা) পক্ষ হতেও এমনটি দাবী করা হয় না যে, মাসীহিয়ত [কথিত রূপক মসীহ্’র আগমনীধারা] আমার সত্তাতেই সমাপ্ত হয়ে গেছে এবং আগামীতে আর কোনো মসীহ্ আগমন করবেনা! বরং আমি তো মানি এবং বারবার বলিও যে, একজন কেন; দশহাজারের চেয়েও অধিক মসীহ্ আগমন করতে পারে এমনকি সম্ভব যে, প্রকাশ্য সম্মান ও সমৃদ্ধিসহকারে আগমন করবে। আরও সম্ভব যে, তিনি সর্বপ্রথম [সিরিয়ার] দামেস্ক নগরীতে অবতরণ করবেন। (রূহানী খাযায়েন: ৩/২৫১; রচনাকাল ১৮৯১ইং)।

রূহানী খাযায়েন: ১৬/২৪৩ ও ৩/২৫১

৪। এবং নবুওয়তী প্রাসাদের সর্বশেষ ইট হলেন হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। (রূহানী খাযায়েন: ২/২৪৬; রচনাকাল ১৮৮৬ইং)। স্ববিরোধী কথা : সুতরাং খোদাতায়ালা ইচ্ছা করলেন যে, এই ভবিষ্যৎবাণী পূর্ণ করবেন এবং সর্বশেষ ইট দ্বারা [নবুওয়তের] ভিত্তিকে পরিপূর্ণতা পর্যন্ত পৌঁছিয়ে দেবেন। অতএব আমিই হলাম সেই [সর্বশেষ] ইট। (রূহানী খাযায়েন: ১৬/১৭৭-৭৮; রচনাকাল ১৯০০ইং)।

রূহানী খাযায়েন: ২/২৪৬ ও ১৬/১৭৭

৫। সত্য তো এটাই যে, মসীহ [ঈসা] আপনা মাতৃভুমি গ্যালীলে [সিরিয়া] গিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। কিন্তু তাঁর ঐ দেহ যেটি [সেখানে] দাফন হয়েছিল তা আবার জীবিত হয়ে যাওয়া একদমই সত্য নয়। (রূহানী খাযায়েন: ৩/৩৫৩; রচনাকাল ১৮৯১ইং)। স্ববিরোধী কথা : হযরত মসীহ এর কবর কাশ্মীরে অথবা তার আশপাশে [তিব্বতে] রয়েছে। (রূহানী খাযায়েন: ১০/৩০২; রচনাকাল ১৮৯৫ইং)।

রূহানী খাযায়েন: ৩/৩৫৩ ও ১০/৩০২

শেষকথা : মির্যা কাদিয়ানী লিখেছেন: মিথ্যাবাদীর কথায় অবশ্যই স্ববিরোধীতা হয়ে থাকে। (রূহানী খাযায়েন: ২১/২৭৫)। অতএব এবার মির্যা কাদিয়ানী তারই স্ববিরোধী কথার কারণে কী সাব্যস্ত হলেন একটু ভেবে দেখবেন কি? এমন একজন মিথ্যাবাদীকে দুনিয়ার সমস্ত মুসলমান কিজন্য ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছেন তা এবার নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন। আল্লাহ আমাদের ঈমানকে রক্ষা করুন। আমীন।

রূহানী খাযায়েন: ২১/২৭৫
  • মির্যা কাদিয়ানীর বইতে তার আরও কিছু স্ববিরোধ কথাবার্তা এখানে

লিখক, শিক্ষাবিদ ও গবেষক

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here