ইলিয়াসি তাবলীগ

(১) আহ! মানুষ কতটা দলান্ধ আর ব্যক্তি-অন্ধ হলে দ্বীনের এই আশীমুশশান খেদমতকে ইলিয়াসি তাবলীগ বলে কটাক্ষ করতে পারে! আল্লাহ এ সব ভাইদের হিদায়াত দিন। আমার ভাইদের মধ্যে কেউ কেউ চটকদার বাচনভঙ্গিতে আরও বলে থাকেন—তাবলীগ মানি কিন্তু ইলিয়াসি তাবলীগ মানিনা। আমি সেসব ভাইদের ঐ একই বাচনভঙ্গিতে যদি পালটা প্রশ্ন করি, মনে করুন কেউ বলল, আমরা আল্লাহর ইসলাম মানি, মোল্লার ইসলাম মানিনা! আমরা নবীর হাদীস মানি, বুখারী মুসলিমের হাদীস মানিনা! আমরা নবীর সালাত মানি, শায়খদের লেখিত কিতাবের সালাত মানিনা। এইবার আহেন, জবাব দেন! জবাব দিতে না পারলে হুদামিছা এই সমস্ত ভাঙ্গা টেপ রেকর্ড বাজানো বন্ধ রাখুন! মওলানা ইলিয়াস সাহেব তো তাবলীগের খেদমতকে সহজসাধ্য করতে গবেষণাধর্মী একটা তারতীব (ডিসিপ্লিন) দিলেন মাত্র, যেমনিভাবে আজানের আওয়াজকে আরও বেশি উচ্চতায় পৌঁছাতে আমরা মাইকের প্রচলন করি।

(২) ইজতিমাহ-কে বিদয়াত বলা হঠাৎ থেমে গেল কেন? আমি এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়েও রীতিমতো টাস্কি খাইলাম….। তাবলীগ জামাতের “বিশ্ব ইজতিমাহ“-কে (বিশ্ব সম্মেলন) বিদয়াত বলতেন যারা তাদেরকেও আমরা একটি সময়ের ব্যবধানে “ইজতিমাহ” করতে দেখেছি। যদিও তা বেরেলী-রেজভী মাসলাকের ভাইদের ক্ষেত্রে “সুন্নী ইজতিমাহ” নামে (রাজধানীর এয়ারপোর্টে সিভিল এভিয়েশনের প্রায় একশ’ একর খোলা ময়দানে- ০৬ মার্চ ২০১৯ ইং) আর আহলে হাদীস মাসলাকের ভাইদের ক্ষেত্রে “তাবলীগী ইজতিমাহ” নামে ছিল (রাজধানীর সুরিটোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ২৭-২৮ জানুয়ারী ২০২২ ইং)! আমাদের আহলে হাদীস ভাইয়েরা খুব চালাক, উনারা ইদানীং “ইজতিমাহ” (আরবী) শব্দ হঠাৎ বাদ দিয়ে সেটির প্রতিশব্দ কনফারেন্স বা Conference (ইংলিশ) শব্দ ব্যবহার করতে শুরু করেছেন! হায়রে আমাগো মুমিন মুসলমান ভাই-বেরাদার! কেউ নাচায় আর কেউ নাচি..! যত দোষ নন্দ ঘোষ।

কনফারেন্স

অপ্রিয় হলেও সত্য, এগুলো প্রতিহিংসা ছাড়া আর কিছুনা। এইসব কারণে আজ সারা দেশে মুসলমান নিজেরা নিজেদের সাথে মারামারি, দাঙ্গাহাঙ্গামা আর তর্কবিতর্কে লিপ্ত, আর ঐ দিকে কাদিয়ানী খ্রিস্টান মিশনারীরা ময়দান ফাঁকা পেয়ে সহজ সরল মানুষগুলোর ঈমানের বারোটা বাজাচ্ছে! আসুন! দ্বীনের জন্য, উম্মাহার কল্যাণের জন্য সহযোগী হই, অন্তত বিরোধিতা না করি। সব পক্ষকে কথাগুলো মনে রাখতে হবে।

লিখক, প্রিন্সিপাল নূরুন্নবী

Previous articleবিনিময় নিয়ে ধর্মকর্ম
Next articleকাদিয়ানী কারা? এক নজরে পড়ে নিন
প্রিয় পাঠকবৃন্দ! এটি সম্পূর্ণ দ্বীনি ও অলাভজনক একটি ওয়েবসাইট। প্রতি বছর এটির ডোমেইন ও হোস্টিং ফি হিসেবে আমাকে এর ব্যয় বহন করতে হচ্ছে। যদি উক্ত ব্যয় বহন করতে অপারগ হই তাহলে এই সাইটটি নিশ্চিত বন্ধ হয়ে যাবে। সেহেতু আপনাদের সবার নিকট আবেদন থাকবে যে, আপনারা সাইটটির উক্ত ব্যয় বহনে এতে বিজ্ঞাপন দিতে বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহিত করবেন এবং নিজেরাও সহযোগিতায় এগিয়ে আসবেন। বিনীত এডমিন! বিকাশ : ০১৬২৯-৯৪১৭৭৩ (পার্সোনাল)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here